দেশের সকল সরকারি চাকরির তথ্য সবার আগে মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে মোবাইলে রাখুন Android App: Jobs Exam Alert 

এবার মেসির থেকে দ্বিগুণ অর্থে জার্সি বিক্রি হলো রোনালদোর। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমর্থকদের কাছে এটা স্বপ্নের মতো হতে পারে। সবাই ভেবেছিলো ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো আবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে কি  ফিরবেন? হ্যাঁ, জুভেন্টাস ছেড়ে অন্য ক্লাবে যাবেন, সেটা মোটামুটি নিশ্চিত ছিল।

এবার তিনি ফিরলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে। কিন্তু তা যেন কিছু সময়ের মধ্যেই শেষ হয়ে গেল। রোনালদোর আবির্ভাব হলো ম্যানচেস্টারের আরেক ক্লাব ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে দিয়ে। ২৭ আগস্ট বাংলাদেশ সময় বিকেলে সিটি জানিয়ে দিল, তারা রোনালদোকে কেনার দৌড়ে আর নেই। তার কয়েক ঘণ্টা পর ইউনাইটেড জানিয়ে দিল, রোনালদো ‘ঘরে’ ফিরছেন!

বলতে গেলে অবিশ্বাস্য মনে হয় ২৪ ঘণ্টা আগেও রোনালদোর দলবদলে রিয়াল মাদ্রিদ, পিএসজি, ম্যানচেস্টার সিটির নাম যতটা শোনা গিয়েছিল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নাম বলতে গেলে শোনাই যায়নি। জেডন সানচো ও রাফায়েল ভারানকে নিয়ে এমনিতেই আনন্দে থাকা ইউনাইটেড ভক্তদের আনন্দ বাঁধ ভাঙল অবিশ্বাস্য এ খবরে।

এ পর্যন্ত রোনালদোর জার্সি বিক্রি করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের স্পনসর অ্যাডিডাস এর মধ্যেই ১৮ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ডের মতো আয় করেছে, যা মেসির পিএসজি জার্সি বিক্রির প্রায় দ্বিগুণ। রোনালদো ৭ শার্ট’ লিখে মানুষ আগের চেয়ে প্রায় ৬০০ শতাংশ বেশিবার অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করছেন। যেসব জার্সির দোকান ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অফিশিয়াল বিক্রেতা, তাদের মধ্যে ২৫ শতাংশ দোকানের সব জার্সি বিক্রি শেষ।

জার্সি বিক্রি বাবদ এর মধ্যেই ১ কোটি ৩১ লাখ পাউন্ডের মতো জমা হয়ে গেছে ক্লাবের কোষাগারে।

জুভেন্টাসকে ১ কোটি ২৯ লাখ পাউন্ড দিয়ে রোনালদোকে দলে টেনেছে ইউনাইটেড। সে হিসাবে রোনালদোকে আনার খরচ তো উঠেই গেছে ইউনাইটেডের!