1. anamul2091@gmail.com : Anamul Haque : Anamul Haque
  2. admin@breakingnews24.com.bd : admin : Anamul Haque
পাস নম্বর ৩৫ পাননি ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ৯০ শতাংশ পরীক্ষার্থী - Breaking news 24
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১২:৩৮ অপরাহ্ন
Breaking news:
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষ ১ম রিলিজ স্লিপে ভর্তি সংক্রান্ত নোটিশ- ২০২১-২২ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরির লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ ১০০ পদে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনের নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ ২০২০ সালের অনার্স ৩য় বর্ষের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ বাংলাদেশ রেলওয়ের সহকারী স্টেশন মাস্টার পদের (MCQ) পরীক্ষার প্রশ্নের সম্পূর্ণ সমাধান ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের পরীক্ষার প্রশ্নের সম্পূর্ণ সমাধান ডিএপি ফার্টিলাইজার কোম্পানী লিমিটেডের নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ ৭৪৯ পদে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ ৪৫৭ পদে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ের পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের অসামরিক পদে চাকরির পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ

পাস নম্বর ৩৫ পাননি ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ৯০ শতাংশ পরীক্ষার্থী

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০২২
  • ১০২৫৮ Time View

সকল  চাকরির পরীক্ষার সময়সূচী ও ফলাফল মোবাইলে Notification পেতে  Android apps মোবাইলে রাখেন: Jobs EXam Alert

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘খ’ ইউনিটে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় পাস নম্বর ৩৫ পাননি ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী। পাসের জন্য এমসিকিউ ও লিখিত—দুই অংশ মিলিয়ে ৩৫ নম্বর পেতে হয়।

ঢাবির তথ্য অনুযায়ী, ভর্তি পরীক্ষায় এমসিকিউ অংশে ৬০ নম্বর ও লিখিত অংশে ছিল ৪০ নম্বর। এর মধ্যে এমসিকিউ অংশে বাংলায় ১৫, ইংরেজিতে ১৫ ও সাধারণ জ্ঞানে ৩০ নম্বর। পাসের জন্য বাংলায় ৫, ইংরেজিতে ৫ ও সাধারণ জ্ঞানে ১৫-সহ মোট ২৪ নম্বর পেতে হবে।

লিখিত অংশে বাংলায় ২০ ও ইংরেজিতে ২০ নম্বর। পাসের জন্য বাংলায় ৫ ও ইংরেজিতে ৫-সহ মোট ১১ নম্বর পেতে হবে। অর্থাৎ পাস করতে এই দুই অংশ মিলিয়ে মোট ৩৫ নম্বর পেতে হবে।

সকল  চাকরির পরীক্ষার সময়সূচী ও ফলাফল মোবাইলে Notification পেতে  Android apps মোবাইলে রাখেন: Jobs EXam Alert

ভর্তি পরীক্ষায় ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করতে না পারার বিষয়ে ঢাবির পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান মামুন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষায় যারা ভালো করবে, তারাই চান্স পাবে। এখন এত শিক্ষার্থী খারাপ করার একটা কারণ হলো আমাদের শিক্ষার যে মান হওয়া উচিত, তা যে নেই, সেটারই প্রমাণ। এখন সার্টিফিকেট-ভিত্তিক পড়াশোনা হয়ে যাচ্ছে। শিক্ষার মান সেভাবে বজায় থাকছে না। ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী ফেল করা এরই প্রতিফলন। অনেক শিক্ষার্থী এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাচ্ছে, কিন্তু শিক্ষার মানের উন্নয়ন তো হচ্ছে না।’

উল্লেখ্য, গত ৪ জুন ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে এক হাজার ৭৮৮টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছিলেন ৫৮ হাজার ৫৭৩ জন শিক্ষার্থী। পরীক্ষায় অংশ নেন ৫৬ হাজার ৯৭২ জন শিক্ষার্থী। পাসে করেছেন ৫ হাজার ৬২২ জন। অংশ নেওয়া পরীক্ষার্থী বিবেচনায় পাসের হার ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ। আর পাস করতে পারেননি ৯০ দশমিক ১৩ শতাংশ শিক্ষার্থী।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 Breaking News 24
Theme Customized By BreakingNews